এবার নিজের ভিডিও নিজেই মনিটাইজ করুন আর (Yellow Dollar Sign Icon) হলুদ ডলার আইকনকে চিরতরে বিদায় দিন! - জীবন গড়ি প্রযুক্তির সুরে ♫

Infotech Ad Top new

Infotech ad post page Top

এবার নিজের ভিডিও নিজেই মনিটাইজ করুন আর (Yellow Dollar Sign Icon) হলুদ ডলার আইকনকে চিরতরে বিদায় দিন!

এবার নিজের ভিডিও নিজেই মনিটাইজ করুন আর (Yellow Dollar Sign Icon) হলুদ ডলার আইকনকে চিরতরে বিদায় দিন!

Share This


হ্যালো ইউটিউবার যেমনটি আপনার হয়ত শুনে থাকবেন, ইউটিউব ভিডিও কন্টেন্ট মনিটাইজেশন ও কোন ভিডিও এডভারটাইজার ফ্রেন্ডলি গাইডলাইন  এর সাথে সংঙ্গতি পুর্ণ তা নির্ধারন করতে অনেকাংশে  আরটিফিসিয়াল ইনটেলিজেন্স বা মেশিন লার্নিং  এর উপর এবং তার পার হিউম্যান রিভিউয়ের  নির্ভর করে।  অন্যভাবে বলতে গেলে কোন কন্টেন্ট yellow dollar sign icon অর্থাৎ লিমিটেড এডস or নো এডস প্রদর্শন করবে, কিংবা Green Dollar Sign icon অর্থাৎ ফুললি মনিটাইজড দেখাবে তা ইউটিউবের অটোমেটেড সিস্টেম নির্ধারন করে। মাঝে মাঝে এই অটোমেটেড সিস্টেম ভুল করে বা করতে পারে যেটি আমাদের ইউটিউব ক্রিয়েটরদের নিকট অত্যন্ত হতাশা জনক। এত পরিশ্রম করে একটি কন্টেন্ট আপনি বানালেন আর তা হতে যদি আপনি কোন অর্থই ইনকাম করতে না পারেন তবে তা বেদনাদায়ক নয় কি?

হ্যালো, আমি মো. গোলজার হোসেন একজন টেক কন্টেন্ট ক্রিয়টর, TechYouTube চ্যালেন। আজকে আমি আলোচনা করব অতি সম্প্রতি ইউটিউব সেলফ সারটিফিকেশন নামে একটি নতুন প্রোগ্রাম চালু করেছে সেটি নিয়ে। ইতো মধ্যে অনেক কন্টেন্ট ক্রিয়টন হয়ত এটি পেয়ে থাকবেন। আমিও পারসনালি এই টুলসটি পেয়েছি গত এপ্রিল মাসের ১৭ তারিখে। আর তাই আপনাদের মাঝে চলে আসলাম এটি নিয়ে আমার অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে। আসলে এই টুলসটির মাধ্যমে আমরা কন্টেন্ট ক্রিয়েটরগণ নিজেরাই ইউটিউবে আরটিফিসিয়াল ইনটেলিজেন্স মেশিনকে জানিয়ে দেব যে আমার তৈরী করা কন্টেন্টটি কতটা এডভারটাইজার ফ্রেন্ডলি গাইডলাইন্স ফলো করে তৈরী করা হয়েছে বা হয়নি। ইউটিউবের রোবটিক এলগারিদম তখন তার নিজের সিদ্ধান্ত ও কন্টেন্ট ক্রিয়টরের সিদ্ধান্তের মধ্যে সামঞ্জস্যতা বা অসামঞ্জস্যতা যাচাইপূর্বক নির্ধারন করবে আপনার তৈরীকৃত কন্টেন্টে কি কি এডস বা বিজ্ঞাপন শো করবে। এর মুল উদ্দেশ্যই হলো ইউটিউবের অটোমেটিক রিভিউ হতে হতে আসা ভুল সিন্ধান্তকে অনেকাংশে কমিয়ে আনা এবং আপনার ভিডিওটি আপলোডের পর প্রথম থেকেই যেন মনিটাইজড থাকে তার জন্য আপনাকে সাহায্য করা। অর্থাৎ আপনি যেন সহসাই  ইউটিউবের রোবোটিক ভুল সিদ্ধান্তের বলি না হোন তার জন্য মনিটাইজেশনের কিছুটা নিয়ন্ত্রন আপনার হাতে তুলে দিল। আসুন দেখি এটি কিভাবে কাজ করে।

সেলফ সারটিফিকেশন কি? ও এটি কিভাবে কাজ করে?

আপনি যদি ইউটিউবের এডভারটাইজার ফ্রেন্ডলি গাইডলাইনস জেনে থাকেন ও সে মোতাবেক আপনার কন্টেন্ট তৈরী করে থাকেন তবে এই প্রসেসটি আপনার জন্য খুবই সহজ। কন্টেন্ট আপলোড করার সময় আপনার কন্টেন্টের মনিটাইজেশ অন করুন এবং নেক্সট বাটকে ক্লিক করুন। পরে ধাপে কন্টেন্ট রেটিং এর নিচে None of the above অপশনটি সিলেকট করুন। আর নেক্সটি বাটনে ক্লিক করুন। যদি আপনি মনে করেন আপনার তৈরী কন্টেন্টটি ইউটিউবের এডভারটাইজার ফ্রেন্ডলি গাইডলাইনস এর সাথে সংগতিপুর্ণ নয় তবে None of the above অপশনটির পরিবর্তে আপনার ভিডিওটিকে যথাযথ রেটিং দিন। এর ফলে হয়ত আপনি আপনার ভিডিওতে লিমিটেড এডস বা ইয়েলো ডলার সাইন আইকন দেখতে পাবেন।  নিজের তৈরী করা ভিডিও টি আসলে সকল বিজ্ঞাপনদাতার জন্য উপযুক্ত নয় বা তাতে ইয়োলো ডলার সাইন আইকন দেখতে হয়ত আপনি মানসিকভাবে প্রস্তুত নন। আপনার নিকট হয়ত এটা কিছুটা বিব্রতকর মনে হতে পারে (কারন এতে করে আপনি নিশ্চি রিভিনিউ লস করবেন)। কিন্তু কন্টেন্ট তৈরীর বিষয়টিতে আপনি কতটা সৎ সেটা ইউটিউবকে বোঝাতেও  আপনার যথাযথ রেটিং দেওয়া আবশ্যক বলে আমি মনে করি। আপনি যথাযথভাবে রেটিং দিলে, ভবিষ্যতে আপনি যত ভিডিও আপলোড করবেন তার উপর ইউটিউব আস্থা রাখতে শুরু করবে এবং ইউটিউবের অটোমেটেড সিস্টেমের উপর আপনাকে আর নির্ভর করতে হবেনা। অটোমেটেড সিস্টেম ভুল সিদ্ধান্ত দিলেও হিউম্যান রিভিউতে আপনার রেটিং পয়েন্টের উপর ভিত্তি করে আপনার রিভিউ আবেদনটি দ্রুততার সাথে ও গুরত্বের সাথে ম্যানুয়ালি রিভিউ করা হবে।  কখনো কখনো নিজের কোন ভিডিওতে রেটিং দিতে গিয়ে আপনি দ্বিধায় ভুগতে পারেন সত্যি আপনার ভিডিওটি ইউটিউবের এডভারটাইজার ফ্রেন্ডলি গাইডলাইনের আওতায় পড়ল কিনা। সেক্ষেত্রে আপনি আপনার ভিডিওটি Unlisted অবস্থায় আপলোড দিন আর সতর্কতার অংশ হিসেবে Ad Suitablity সেকশনে নিচের অপশন অর্থাৎ Inappropriate language এর দ্বিতীয় অপশনটি সিলেকট করুন। এই কাজ করে সবশেষে Manual Review বা Human Review এর জন্য আবেদন করুন। এভাবে করলে ইউটিউব আপনার ভিডিওটি ম্যানুয়ালী রিভিউ করবে এবং তার ডিসিশন জানিয়ে দিবে। এভাবে ভিডিওটি ভিউয়ারদের নিকট পৌছানের আগেই আপনি নির্ধারন করতে পারবেন সেটি মনিটাইজড হবে কিনা।  কনফারমেশন পেলে অবশেষে ভিডিওটি পাবলিশ করুন আর যদি ইউটিউব আপনার রিভিউ আবেদন গ্রাহ্য না করে তবে, পেছনে ফিরে যান ভিডিওটি এডিট করুন তারপর আবার নতুন রুপে ভিডিওটি আপলোড করুন।  এক্ষেত্রে আমার পরামর্শ হলো হিউম্যান রেটার কর্তৃক ফাইনাল  ডিসিশন পেলে সেগুলো নোট করে রাখুন। কারন এগুলো আপনার ইন ফিউচার ভিডিও কন্টেন্ট আপলোডে গাইডলাইন হিসেবে কাজ করবে। যদি আপনি যথাযথভাবে সততার সাথে আপনার তৈরী ভিডিওতে রেটিং না দেন তবে ইউটিউব আপনার নিকট হতে এই টুলসটি উঠিয়ে নেবে এবং জেনে রাখুন আপনি যদি আপনার ভিডিওতে বার বার ভুল রেটিং দেন আপনার চ্যানেলটি রিভিউতে চলে যাবে এবং আপনার চ্যানেলের মনিটাইজেশন উঠিয়ে নেওয়া হবে।

এতক্ষণ আমরা সেলফ সারটিফিকেশন প্রোগাম ও এটি কিভাবে কাজ করে তা জানলাম। এখন আমি আপনাদের ভিডিও আপলোড সম্পর্কে কতগুলো টিপস দেব-

১. ইউটিউবের এডভার্টাইজার ফ্রেন্ডলীগাইডলাইনগুলো ভালোভাবে বুঝে পড়ুন।

২. আপনি আপনার ভিডিওতে যেমন রেটিংই দেন না কেন, আপনার ভিডিওতে মনিটাইজেশ অনরাখুন। এখন আপনি প্রশ্ন করতেই পারেন, আমি কেন এটি করব যখন আমি নিজেই নিশ্চিত যে আমার কন্টেন্টটি মনিটাইজেশনের যোগ্য নয়? এর কারন হিসেবে বলা যায় যদি আপনি আপনার ভিডিওটিকে 'Mature' হিসেবে চিহ্নিত করে তবুও কিছু এডভার্টাইজার আপনার ভিডিওতে এড প্রদর্শনের আগ্রহ দেখাতে পারে। তাছাড়া ইউটিউব প্রিমিয়াম তো রয়েছেই সেখানেও আপনি আপনার ভিডিও থেকে আর্ণ করতে পারেন। ইউটিউব প্রিমিয়াম কি তা না হয় অন্য কোন দিন আলোচনা করব।

৩. আপনার যে ভিডিওটি এডভারটাইজার ফ্রেন্ডলী নয় সেটির রেটিং করার সময় আরও বেশি যথার্থতা ও সততার পরিচয় দিন। কারন এটা ইউটিউবের নিকট গুরুত্বপুর্ণ যে আপনি নিজেই সঠিকভাবে ব্রান্ড-আনসেইফ কন্টেন্ট আইডেন্টিফাই করতে পারছেন। কারন এই ভিডিওগুলোই ইউয়োলো আইকন পায়। আপনি নিজে ইয়েলো সাইন আকন সনাক্ত করতে না পারলে, কেবল তখনই ইউটিউবের অটোমেটেড সিস্টেম তা করবে। কারন বিশ্বব্যাপী মহামারীর এই সময়ে এতসংখক রিভিউ আবেদন মানুষের পক্ষে ম্যানুয়ালী করা অত্যন্ত সময়সাপেক্ষ।

এবারে আসুন আমরা কিভাবে ইউটিউবে ভিডিও কন্টেন্ট আপলোড করবো এবং নিজের ভিডিওতে কিভাবে সেলফ রেটিং দেব তা  একবার হাতে কলমে দেখে  নিই।

No comments:

Post a Comment

Infotech Post Bottom Ad New

Pages