YouTube এ হঠাৎ করে সাবস্ক্রাইবার কমে যাচ্ছে? কারণ কি আসুন জানি সব কিছু। - জীবন গড়ি প্রযুক্তির সুরে ♫

Infotech Ad Top new

Infotech ad post page Top

YouTube এ হঠাৎ করে সাবস্ক্রাইবার কমে যাচ্ছে?  কারণ কি আসুন জানি সব কিছু।

YouTube এ হঠাৎ করে সাবস্ক্রাইবার কমে যাচ্ছে? কারণ কি আসুন জানি সব কিছু।

Share This
ফেসবুকে ইউটিউবে যে বড় বড় গ্রুপ গুলো রয়েছে সেখানে প্রায়ই গ্রুপ মেম্বারদের কাছ থেকে একটি অভিযোগ প্রায়ই শুনতে হয়। সেটি হল সাবস্ক্রাইবার ড্রপ। কেউ বলেন আমার এক মিনিটের মধ্যে 200 সাবস্ক্রাইবার নাই। কেউবা বলেন 109 কেউ বলেন 10 টা হারিয়ে গেছে! আসলে ব্যাপারটা কি সাবস্ক্রাইবার পড়ে যাওয়ার কি মোড়ক লাগল নাকি? এই বিষয়টিকে খোলাসা করতেই আজকে আমার এই লেখা তো চলুন শুরু করি। 

আসলে, যখন কেউ আপনার চ্যানেলের সাবস্ক্রাইব করে; এটা মূলত হওয়া উচিত এই কারণে যে আপনার চ্যানেলের কন্টেন্ট এর প্রতি সেই সাবস্ক্রাইবারের আগ্রহ রয়েছে, আর সে এই আগ্রহের প্রমাণ রাখবে বিভিন্ন এক্টিভিটিজ এর মাধ্যমে। যেমন সে আপনার ভিডিও গুলো বা কনটেন্ট গুলো নিয়মিত দেখতে থাকবে। আপনার কনটেন্ট গুলো দে‌‌খে লাইক দিবে অথবা কমেন্টস করবে। ইউটিউব কর্তৃপক্ষ তার কমিউনিটিকে আরো বেশি মিনিংফুল ও কার্যকরী করার জন্য এই বিষয়টির উপর বেশি প্রাধান্য দেয়। ইউটিউব তার অ্যালগোরিদম ও প্রোগ্রামিং বটের মাধ্যমে প্রত্যেকটা ইউজার একাউন্টের অ্যাক্টিভিটি ট্র্যাক করে। উপরোক্ত নিয়মের ব্যত্যয় হলেই ইউটিউব সেটিকে স্প্যামিং এবং অবৈধ হিসেবে গণ্য করে। 

আপনি যদি দেখেন যে আপনার সাবস্ক্রাইবার হঠাৎ করেই কমে যাচ্ছে। এটা কেন হচ্ছে তার মূলত কারণগুলো নিম্নরূপ-

১। ফেসবুক অনলাইন সামাজিক মাধ্যমের প্রভাব: দেখুন ইউটিউবার হিসেবে নিশ্চয়ই আপনার ফেসবুকে অনেক আনাগোনা আছে সম্ভবত আপনার ফেসবুকে কোন পেইজ বা গ্রুপ রয়েছে। সেখানে হয়তো আপনি আপনার ইউটিউব এর কনটেন্টগুলো নিয়মিত শেয়ার করেন। এটা আপনি করতেই পারেন এটা দোষের কিছু নয়। কিন্তু অনেক ইউজার রয়েছে বা ফেসবুক ব্যবহারকারী রয়েছে যারা শুধু ফেসবুকেই বেশি সময় কাটাতে পছন্দ করেন। তারা হয়তো আপনার শেয়ার করার লিঙ্ক থেকে ইউটিউবে হঠাৎ করে একদিন আসলো আর আপনার চ্যানেলটাকে সাবস্ক্রাইব করে দীর্ঘদিনের জন্য উধাও হয়ে থাকল। আসলে এমন ভিউয়ার বা ইউটিউব সাবস্ক্রাইবার দিয়ে কি ইউটিউব এর কোন লাভ হবে? বা তারা আপনার কি কোন আজ কাজে আসবে? এর উত্তর হলো 'না' ।  ইউটিউব কি তাহলে বসে বসে আঙ্গুল চুষবে? বাকীটা আর নাইবা বললাম।
২। সাসপেন্ডেড একাউন্ট: ধরুন আপনার চ্যানেল টিতে সাড়ে চার হাজার সাবস্ক্রাইবার আছে। হঠাৎ করেই একদিন দেখলেন তাতে ২০ টি সাবস্ক্রাইবার পড়ে গেছে। এর অনেকগুলো কারণ হতে পারে তার মধ্যে একটি হল ঐসকল সাবস্ক্রাইবারের ইউজার অ্যাকাউন্ট ইতিমধ্যেই সাসপেন্ড করা হয়েছে। তাই ইউটিউব কর্তৃপক্ষ আপনার সাবস্ক্রাইবার কাউন্ট থেকে সেগুলো কে বাদ দিয়ে দিয়েছে। 
৩। স্প্যাম একাউন্ট: ইউটিউব স্প্যাম কি এই বিষয়ে আমার একটি পোস্ট আছে আপনারা চাইলে দেখে আসতে পারেন। যেসকল একাউন্ট স্প্যামিং দোষে দুষ্ট হবে, ইউটিউব তাদের একাউন্ট স্থগিত করবে আর তারা যদি আপনার সাবস্ক্রাইবার হয়ে থাকে তাহলে তাদের সাবস্ক্রাইবার কাউন্ট থেকে তো অবশ্যই অপসারণ করা হবে। আপনার সাবস্ক্রাইব ড্রপ স্বাভাবিক একটি ঘটনা। 
৪। ইউজারগন আপনার চ্যানেলের প্রতি আগ্রহ হারিয়ে ফেলছে: শুধু শুধু ইউটিউব এর ঘাড়ে দোষ দিয়ে তো আর সব সময় পার পাওয়া যাবে না। আপনি হয়তো আপনার চ্যানেলের কন্টেন্ট ইতিমধ্যে পরিবর্তন করেছেন, অথবা আপনার চ্যানেলের কন্টেন্ট কোয়ালিটি ভালো নয়। কিংবা আপনি হয়তো আপনার চ্যানেল ইউজারের সাথে ঠিকমত কমিউনিকেট করেন না অথবা তাদের কমেন্টস এর জবাব দেন না। অথবা হতে পারে আপনি নিয়মিত আপনার চ্যানেলে কনটেন্ট আপলোড দেন না দিলেও হয়তো  সেটি পরিমাণে কম! সে কারণেই হয়তো আপনার চ্যানেলের সাবস্ক্রাইবার আপনার সঙ্গে আগের মত আর থাকতে চাইছে না। ইচ্ছে করেই হয়তো তারা আনসাবস্ক্রাইব করে দিচ্ছে।
৫। আপনি একজন সাবস্ক্রাইবার ভিক্ষুক: কথায় বলে ভিক্ষা করে বেশি দূর এগোনো যায় না। আপনি হয়তো ফেসবুকে চ্যানেলকে সাবস্ক্রাইব করতে বলছেন। মেসেঞ্জারে বন্ধুদের কে বলছেন সাবস্ক্রাইব করতে। অনেকে তো আবার কন্ডিশন বেঁধে দেয় "আমার চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করলে আমি আপনার চ্যানেলকে সাবস্ক্রাইব করব" এটাকে ইংরেজিতে বলে Sub4Sub। এটাকে অনেকটা win vs win বলা যেতে পারে। এই খেলায় অনেকে সুবিধা করতে না পেরে আবার আপনাকে আনসাবস্ক্রাইব করতে পারে। তাই বলি সাবস্ক্রাইভ ভিক্ষা আর জুয়া খেলায় মেতে কখনো ইউটিউবে সফলতা পাবেন না। আর ইউ টিউব যদি বুঝতে পারে যে আপনি এই খেলায় মেতে উঠেছেন তাহলেতো কেল্লাফতে। আপনাকে আজীবনের জন্য ব্যান করে দেয়া হবে।
৬। নিষ্ক্রিয় বা inactive সাবস্ক্রাইব: আপনার হয়তো এমন কিছু সাবস্ক্রাইবার আছে যারা মোটেও আপনার ভিডিও কনটেন্ট গুলো দেখেন না তাদের ইউটিউব কর্তৃপক্ষ একটা পর্যায়ে গিয়ে রিমুভ করে দিবে। ফলে স্বাভাবিকভাবেই আপনার সাবস্ক্রাইব ড্রপ হবে। 
৭। সাবস্ক্রাইবার বাড়ানোর জন্য কোন অবৈধ পন্থা অবলম্বন করা: আজকাল অনেকেই মার্কেটপ্লেস থেকে সাবস্ক্রাইবার কিনে বা কোন অটোমেটিক উপায় সাবস্ক্রাইবার বাড়ানোর চিন্তা ভাবনা করে। দেখুন এই সাবস্ক্রাইবার গুলো ম্যাক্সিমাম ক্ষেত্রে রিয়াল নয় আর রিয়াল সাবস্ক্রাইবার না হলে সেগুলো ইউটিউব কর্তৃপক্ষ কখনোই রাখবে না। আর ভুলেও যদি ইউটিউব কর্তৃপক্ষ বুঝতে পারে এমন একটি পাপ কাজে আপনি লিপ্ত। তাহলে সরাসরি ব্যান খাবেন। সো প্রিয় বন্ধুরা কি কি কারনে ইউটিউবের সাবস্ক্রাইবার ড্রপ হয় বা হতে পারে এবং সাবস্ক্রাইবার ড্রপ প্রতিরোধের উপায় নিয়ে আমার এই টিউটোরিয়ালটি দেখার অনুরোধ রইলো-



No comments:

Post a Comment

Infotech Post Bottom Ad New

Pages