++ Google Account রিকোভার করতে আপনাকে যে যে প্রক্রিয়ার মধ্যদিয়ে যেতে হবে ++ - জীবন গড়ি প্রযুক্তির সুরে ♫

Post Top Ad

++ Google Account রিকোভার করতে আপনাকে যে যে প্রক্রিয়ার মধ্যদিয়ে যেতে হবে ++

++ Google Account রিকোভার করতে আপনাকে যে যে প্রক্রিয়ার মধ্যদিয়ে যেতে হবে ++

Share This
২০১৬ সাল হতে Google অ্যাকাউন্ট পুনরুদ্ধারের প্রক্রিয়াতে উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন করেছে। সাধারণভাবে কতিপয় বিশেষ বিষয়ের প্রতি লক্ষ করেই এটির প্রক্রিয়াকে সরলীকরণ করা হয়েছিল। এর অর্থ হল আপনি Google Account পুনরুদ্ধারের  অতীতে যে প্রক্রিয়াটি ব্যবহার করেছেন  তা সম্ভবত এখন ভিন্ন হতে পারে, তাই এখানে অবাক হবার কিছুই নেই। 

তথ্যের অতিরিক্ত উৎস্যগুলি   জিমেইল হেল্প সেন্টার এবং জিএমএল হেল্প ফোরাম এর মধ্যে অন্তর্ভুক্ত রয়েছে, যার উভয়ই অনুসন্ধানকারী উদ্দেশ্য সাধনে সক্ষম। 

++ হারানো পাসওয়ার্ড রিকভারি বা পুনরুদ্ধার করবেন যেভাবে++ 

পুনরুদ্ধার প্রক্রিয়া দুটি উপায়ে শুরু করা যেতে পারে:

১. https://mail.google.com/ এ গিয়ে Gmail সাইন ইন পৃষ্ঠাতে যান এবং আপনার ইমেল ঠিকানাটি প্রবেশ করার পরে "পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন বা Forgot Password ?" লিঙ্কটিতে ক্লিক করুন।

অথবা,

২. পুনরুদ্ধারের প্রক্রিয়া শুরু করতে সরাসরি https://accounts.google.com/signin/recovery  তে যান। এখানে আপনাকে একটি "Account Support" পৃষ্ঠা দেখবেন, যেখানে আপনার ইমেল ঠিকানাটি দিবেন এবং প্রক্রিয়াটি শুরু করতে Next বাটনটিতে ক্লিক করুন। যদি আপনার ইমেল ঠিকানাটি মনে না থাকে তবে "আমার অ্যাকাউন্ট খুঁজুন বা Find My Account" নামে একটি (নীচে আলোচনা করা হয়েছে) লিঙ্কটি রয়েছে, সেটিতে ক্লিক করুন।
তারপরে আপনাকে আপনার অ্যাকাউন্টের অ্যাক্সেস পুনরুদ্ধার করার জন্য বা আপনার Account এর নিজস্বতা প্রমাণ দেওয়ার পক্ষে অনেকগুলি সম্ভাব্য উপায় উপস্থাপন করা হবে। Recovery Option গুলোতে নির্ধারিত বিষয়গুলো হলো ঐ সকল option যেগুলো জি-মেইল একাউন্টটিতে কনফিগার করা ছিল।  উদাহরণস্বরূপ, কোনও recovery  ইমেল ঠিকানা কনফিগার করা না থাকলে, সেই বিকল্পটি দেখানো হবে না। যদি অপশনগুলি কনফিগার করা থাকে আর তা ‍ আপ টু ডেট করা না থাকলে, তবে এই অপশনগুলো প্রদর্শিত হলেও রিকোভারির জন্য তা কোন কাজেই আসবেনা। কম্প্রোমাইজড অ্যাকাউন্টের ক্ষেত্রে, অপশনগুলো প্রদর্শিত হতে পারে, তবে হ্যাকার দ্বারা সংশোধন করা হলে তারা পুনরুদ্ধারের জন্য অর্থহীন হবে। 

হারিয়ে যাওয়া অ্যাকাউন্টটিতে 2-স্টেপ ভেরিফিকেশন এনাবল করা  থাকলে (https://gmail.googleblog.com/2011/02/advanced-ign-in-security-for-your.html) প্রক্রিয়াটি একটু ভিন্ন হবে যা নীচে আলোচনা করা হয়েছে। অ্যাকাউন্টটি কম্প্রোমাইজড একাউন্ট হলে এবং হ্যাকার জি-মেইল একাউন্টটি রিকভার কাজটিকে জটিল করার জন্য 2 স্টেপ ভেরিফিকেশন এনাবল করে রাখলেও উপরোক্ত কথাটি সত্য বলে গন্য হবে।

একাউন্ট পুনরুদ্ধারের অপশনগুলি মধ্যে নিম্নলিখিত যে কোনও প্রশ্ন বা ক্রিয়া অন্তর্ভুক্ত থাকতে পারে এবং তালিকায় না থাকলে সম্ভবত সেগুলো অবশ্যই নিচের ছবিতে দেখতে পাবেনঃ

  • Enter the last password you remember
  • Get a verification code by text or phone call at <number>  (it doesn't always offer both options)
  • Confirm the  phone number you provided in our security settings
  • Google will send an e-mail containing a one time verification code to <e-mail>
  • Get a prompt on your <phone> and tap Yes to sign in
  • Answer the security question you added to your account
  • When did you create this Google account?
  • If you can, briefly tell us why you can't access your account


Enter the last password you remember Get a verification code by text message or a phone call Confirm the phone number you provided in your security settings Google will send an e-mail containing a one-time verification code Get a prompt on your phone and tap Yes to sign in Answer the security question you added to your account When did you create this Google Account If you can, briefly, tell us why you can't access your account

অপশনগুলোর বেশিরভাগই একাউন্টের একসেস হারানোর পুর্বেই কনফিগার করা তথ্য। তাই একটি অপশনও ( যেমন একটি রিকোভারি ইমেইল) পুর্বে কনফিগার করা না থাকলে তা কখনোই আপনার সামনে আনা হবেনা। আপনার  পূর্বে কনফিগার করা ইমেল বা ফোন নম্বর দেওয়া থাকলে এবং সেটি নির্বাচন করলে আপনাকে একটি ছয়-সংখ্যার কোড প্রবেশ করানোর জন্য  পাঠানো হবে। সঠিক কোডটি প্রবেশ করালে আপনাকে পাসওয়ার্ডটি পুনরায় সেট করার জন্য একটি পেইজে নিয়ে যাওয়া হতে পারে। অন্যান্য প্রশ্নের উত্তর সঠিকভাবে দিলেও আপনাকে সরাসরি সেই পেইজে নিয়ে যাওয়া হতে পারে।


এটিও হতে পারে যে একটি পূর্ব-কনফিগার করা ফোন নম্বর বা ই-মেইল সহ এবং কোড পাওয়ার পরেও এ প্রক্রিয়াটিতে আপনাকে অতিরিক্ত প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করতে পারে। অ্যাকাউন্টটি ফেরত দেওয়ার আগে Google আপনার অ্যাকাউন্টে সন্দেহজনক কার্যকলাপ দেখেছে এবং সেক্ষেত্রে মালিকানাটির অতিরিক্ত প্রমাণের প্রয়োজন হলে এটি ঘটতে পারে। 

আপনি যদি প্রদত্ত অপশনটির সঠিক উত্তর দিতে না পারেন তবে পরবর্তী অপশনের জন্য "Try a different question" লিঙ্কটিতে ক্লিক করুন। অবশ্যই যদি আপনি অনেক প্রশ্ন এড়িয়ে যান তবে আপনি অ্যাকাউন্টটির মালিকানা প্রমাণ করতে পারবেন না। যদি আপনাকে পাসওয়ার্ডটি পুনরায় সেট করার অপশন দেওয়া না হয় তবে শেষ প্রশ্নটিতে সাধারণত একটি পরিচিতি ইমেইল ঠিকানা চাওয়া হবে যেখানে Google আপনাকে ইমেল করতে পারে।

উপরের ছবির মতো সেই ঠিকানাটিতে ছয়-সংখ্যার কোড পাঠানো হবে যা আপনি পরে প্রবেশ করবেন। কিন্তু উপরে উল্লিখিত, এই কোডটি পাওয়ার অর্থ এই নয় যে পাসওয়ার্ডটি পুনরায় সেট করার অনুমতি দেওয়া হবে। এই ধাপটির অর্থ হলো যে আপনার একটি সচল ইমেইল আছে আর আপনার সেটিতে যাওয়া আসা আছে। আপনি পুর্বের পেইজগুলোতে যে উত্তরগুলো সরবরাহ করেছেন তার উপর নির্ভর করে আপনাকে পাসওয়ার্ড রিসেট সুবিধা দেওয়া হতে পারে অথবা আপনার রিকোয়েস্ট ডিনাই করা হতে পারে। 
এই মেসেজটির অর্থ এই যে আপনার কন্টাক্ট ইমেইলটি ভেরিফাইড কিন্তু আপনার উদ্ধার করতে চেষ্টা করা ইমেইলটির মালিকানা নিশ্চিত নয়।



আপনি যদি কোনও অপশন ব্যবহার করতে না পারেন বা অ্যাকাউন্টটির মালিকানা প্রমাণ করতে ব্যর্থ হন তবে আপনি একটি বার্তা পাবেন যা এমন- "Google couldn't verify this account belongs to you"। আপনি যদি অতিরিক্ত বা আরো সঠিক তথ্য সরবরাহ করতে পারেন তবে আপনি অবশ্যই আবার চেষ্টা করতে পারেন তবে আপনি যদি অ্যাকাউন্টটির মালিকানা প্রমাণ করতে না পারেন তবে এটি আর পাবেন না। এক্ষেত্রে একাউন্টটি পুনরুদ্ধারের আর কোন পথ নেই।

++ হারিয়ে যাওয়া বা ভুলে যাওয়া একাউন্ট খুজে পেতে ++
আপনি যদি প্রথম পৃষ্ঠায় "Find my account" লিঙ্কটিতে ক্লিক করেন তবে আপনাকে কতগুলো ধাপ পুরন করতে বলা হবে: যেমন ধরুন আপনার পূর্বে  কনফিগার করা ইমেল বা ফোন, অ্যাকাউন্টের প্রকৃত নাম এবং একটি যাচাইকরণ কোড। আপনি যদি সফল হন, তবে আপনি উক্ত তথ্য যে বা যে সকল অ্যাকাউন্টগুলির ম্যাচ করে তার একটি তালিকা পাবেন এবং এরপর আপনি সাইন ইন করার জন্য অগ্রসর হতে পারেন। আপনাকে অবশ্যই ই-মেইল / ফোন এবং অ্যাকাউন্টের নাম উভয়ই জানতে হবে। যদি আপনি অ্যাকাউন্টের পাসওয়ার্ডটিও না জানেন , তবে আপনাকে এটি পুনরুদ্ধার করার জন্য উপরের প্রক্রিয়াটি ব্যবহার করতে হবে।

Enter any recovery email or phone number associated with your account Enter the name on your Google account Google will send an email containing a one time verification code Google has sent you a verification code to the emailChoose an account

++ 2-স্টেপ ভেরিফিকেশন এনাবল করা একাউন্ট এর ক্ষেত্রে ++

Two-step verification অ্যাকাউন্টকে বাড়তি মাত্রার সুরক্ষা প্রদান করে, যার জন্য সাইন ইন করতে পাসওয়ার্ড ছাড়াও ব্যবহারকারিকে দ্বিতীয় আর একটি কাজ করতে হয়, আর তা হলো কোড বসানো।  যেমন, Two-step verification একটি অ্যাকাউন্ট রিকোভার করা একজন প্রকৃত ইউজারের নিকট অনেকটা কঠিন। কোন একাউন্ট যদি অন্যের হাতে চলে যায় আর হ্যাকার যদি তাতে Two-step verification এনাবল করে ফেলে তবে সেক্ষেত্রে বিষয়টি জি-মেইলের প্রকৃত মালিকের বিপক্ষে চলে যেতে পারে।

যখন Two-step verification  এনাবল করা থাকে তখন আপনি অ্যাকাউন্টে আপনার অ্যাকাউন্টের নাম এবং পাসওয়ার্ড দেওয়ার পর third screen দেখতে পাবেন যেখানে ডিফল্ট পদ্ধতির মাধ্যমে 2-step verification কোড সরবরাহ করতে হতে পারে, যা আপনি পুর্বেই কনফিগার করে রেখেছিলেন। যদি আপনি 2-step verification প্রদান করতে অক্ষম হন, তবে পেইজে "Try another way to sign in" একটি হাইপার লিঙ্ক রয়েছে। এটি আপনার অ্যাকাউন্টের জন্য পূর্বে কনফিগার করা সমস্ত অপশনগুলোকে লিস্ট আকারে প্রদর্শন করবে (কোন ব্যাকআপ অপশন কনফিগার করা না থাকলে এই লিস্টটি খুব ছোট হতে পারে)। শেষে "Ask Google for help..." বাটনটিতে ক্লিক করলে অন্য একটি  স্ক্রিনে যাবেন যেখানে সংক্ষেপে আপনি অপশনগুলো দেখতে পাবেন। 

To sign in to your Google Account choose a task from the list below It will take at least 2 days to get back into your account using Google's help
হ্যাঁ, উপরের অ্যাকাউন্টে 2-step verification options কনফিগার করা আছে আর যেহেতু আমার নিজের অ্যাকাউন্ট থেকে বহিষ্কৃত হওয়ার কোনও  ইচ্ছা আমার নেই। সেহেতু second screen এ খুব নীচে "Request Google's help" নামে একটি লিঙ্কক রয়েছে সেখানটায় ক্লিক করুন। এই পর্য়ায়ে এস আপনাকে  অ্যাকাউন্ট পুনরুদ্ধারের গতানুগতিক প্রক্রিয়াতে নিয়ে যাওয়া হবে তবে আপনার অ্যাকাউন্টে কনফিগার করা অপশনগুলোর উপর ভিত্তি করে অতিরিক্ত প্রশ্ন এখানে দেখতে হতে পারে। উদাহরণ স্বরূপ:
Confirm the phone number you provided in your security settings If you can, briefly tell us why you can't access your account
মালিকানার অপর্যাপ্ত প্রমাণ সরবরাহ করা হলে "Google couldn't verify.." বার্তাটি প্রদর্শিত হবে উপরের  পুনরুদ্ধার প্রক্রিয়ার অনুরূপ । আর যদি Google কে পর্যাপ্ত তথ্য সরবরাহ করা হয় তবে "Thanks! We're on it."  বার্তাটি প্রদর্শিত হবে।

Google couldn't verify this account belongs to you We usually respond within 3-5 business days

গুগল যখন  তদন্তটি শেষ করবে, যার জন্য  3-5 বিজনেস দিবস  (রিয়েল-টাইম ১ সপ্তাহে ) সময় নিতে পারে, তখন আপনার দেওয়া পরিচিতি ইমেইল ঠিকানায় আপনাকে জানানো হবে।

যদি আপনার অনুরোধটি অস্বীকার করা হয় তবে একমাত্র উপায়  হ'ল রিকোভারি প্রক্রিয়াটিকে বার বার চালিয়ে যান। আর পুর্বের থেকে আরও বেশি প্রশ্ন আর সঠিক প্রশ্নের উত্তর দিন, একই উত্তর দিয়ে করা একই প্রক্রিয়া কখনও আপনার একাউন্ট ফিরে পেতে সাহায্য করবেনা।  আপনাকে অবশ্যই মালিকানার আরও প্রমাণ সরবরাহ করতে হবে তা নাহলে আপনাকে  Google অ্যাকাউন্টটি ফেরত দেবে না।

++ একাউন্ট পুনরুদ্ধারের অতিরিক্ত  নির্দেশাবলী এবং পরামর্শ ++

এই বিভাগে কিছু তথ্য এবং ইঙ্গিত দেওয়া রয়েছে যা একটি সফল অ্যাকাউন্ট পুনরুদ্ধারের সুযোগকে তরান্বিত করতে পারে। এই বিভাগটি দীর্ঘ এবং এর কোন ছবি বা চিত্র নেই, তবে এটি খুব ভালভাবে এবং সাবধানে পড়ে নেওয়াটাই বুদ্ধিমানের কাজ।

অ্যাকাউন্ট পুনরুদ্ধারের প্রক্রিয়াটি  এমন একটি নির্দিষ্ট উপাদানগুসমুহের সমন্বয়ে  গঠিত যা  অ্যাকাউন্টের বৈধ মালিক নির্ধারণ করতে Google ব্যবহার করে থাকে।এগুলোর কিছুর উপর আপনার সীমিত নিয়ন্ত্রণ আছে, এবং কতগুলোর উপর নেই। কিন্তু সফলভাবে এই রিকোভারি প্রক্রিয়ার মধ্যদিয়ে যেতে হলে   বিষয়টি ভালভাবে বুঝা অত্যন্ত জরুরী। 

 অ্যাকাউন্টটি হারিয়ে যাওয়ার আগে আপনি নিয়ন্ত্রণ করতে পারতেন এমন বিষয়গুলো মাথায় রাখা জরুরীঃ-
সম্ভবত আপনি এই নিবন্ধটি পড়ছেন কারণ আপনি ইতিমধ্যে একটি অ্যাকাউন্টে অ্যাক্সেস হারিয়ে ফেলেছেন, তাই এই আইটেমগুলির জন্য হয়ত আপনার কিছুটা দেরি হয়ে গেছে। তবুও, পুনরুদ্ধারকৃত অ্যাকাউন্টের জন্য এইগুলি মনে রাখা এবং আপনার যেকোন অন্য অ্যাকাউন্ট রক্ষা করতে ভবিষ্যতে আবারও এই নিবন্ধটি দেখার প্রয়োজন হতে পারে। 

অ্যাকাউন্ট পাসওয়ার্ড - এটি লিখে রাখুন এবং নিরাপদ কোন স্থানে সংরক্ষণ করুন।  সবাই মনে করে যে তারা তাদের পাসওয়ার্ড মনে রাখবে, কিন্তু পরেই তাদের এই ধারনা ভুল প্রমাণিত হয়। আপনি যদি আপনার পাসওয়ার্ডের রেকর্ড  সংরক্ষণ রাখেন তবে এটি দ্বারা হারিয়ে অ্যাকাউন্ট এর যে কোন সমস্যা হলে সহজেই সমাধান করা যায়।

Recovery Options - আপনার সমস্ত অ্যাকাউন্টের জন্য বিদ্যমান অপশনগুলো  ( বিশেষ করে ই-মেইল এবং ফোন) কনফিগার করুন। এবং এগুলোকে যথা সম্ভব আপডেট রাখুন। https://support.google.com/accounts/answer/183723

Account Creation Date- অ্যাকাউন্ট Recovery-র বর্তমান প্রশ্নগুলির মধ্যে কখন আপনার অ্যাকাউন্ট তৈরি করা হয়েছিল তার তারিখ ক্ষণ মনে রাখাটা জরুরী। কেবলমাত্র "welcome to Gmail" বার্তাটি মুদ্রণ বা  নিরাপদ রাখার জন্য অন্য একাউন্টে ফরোয়ার্ড করা  বার্তাগুলি  আপনাকে একধরনের সুরক্ষা দেবে। 

অ্যাকাউন্ট পুনরুদ্ধারের সময় আপনি নিয়ন্ত্রণ করতে পারেন এমন বিষয়সমুহ- জিজ্ঞেস করা প্রশ্নাবলীর বিস্তারিত এবং কীভাবে তাদের উত্তর দিতে হবেঃ-

অতীতের দেওয়া পাসওয়ার্ড(Past password) - এটি আপনার অ্যাকাউন্টের জন্য আপনি সঠিকভাবে মনে রাখতে পারেন এমন সর্বসাম্প্রতিকতম পাসওয়ার্ড হওয়া উচিত। Google পাসওয়ার্ডগুলির একটি পঠনযোগ্য সংস্করণ সংরক্ষণ করে না, সুতরাং আপনি যেকোন পাসওয়ার্ড সরবরাহ করেন তা অবশ্যই 100% সঠিক হতে হবে তা নাহলে এনক্রিপ্ট হওয়া অবস্থায় এটি অ্যাকাউন্টের পাসওয়ার্ড ইতিহাসের কোনও এন্ট্রি মিলবে না।

নিরাপত্তা প্রশ্ন (Security question) - নিরাপত্তা প্রশ্নগুলি আর গুগল সাপোর্ট করেনা যার অর্থ আপনি তাদের আর নতুন করে যুক্ত বা সংশোধন করতে পারবেন না (শুধুমাত্র মুছে ফেলতে পারবেন)। কিন্তু যদি আপনি একাউন্টে পুর্বে কখনো করে থাকেন তবে আপনার উত্তর দেওয়ার সুযোগ থাকতে পারে। অনুমিত উত্তরটি সঠিক হতে হবে (শুধু কাছাকাছি হলে চলবেনা)।

সৃষ্টি তারিখ(Account Creation date) - অ্যাকাউন্ট তৈরির তারিখটি নিখুঁত হতে হবে এমনটি নয়।  কয়েক দিন বা সম্ভবত কয়েক সপ্তাহ আগে/পরে হতে পারে  কিন্তু তা মাস বা বছর  অতিক্রম করবেনা। প্রকৃত তারিখ থেকে এক মাস প্লাস / মাইনাস বা এর কাছাকাছি হতে হবে । আপনি যদি আপনার একাউন্ট সৃষ্টির তারিখটি না জানেন , তবে আপনি কিছু চিন্তার সাথে এটিকে রিলেট করুন যার দারা হয়তবা এটি খুঁজে বের করতে সক্ষম হবেন। যেমন ধরুন-

  • account creation verification e-mail  সন্ধান করা যা আপনার নিজের মালিকানাধীন অন্য অ্যাকাউন্টে পাঠানো হয়েছিল।
  •  আপনার একাউন্ট তৈরীর বিষয়টি হয়তবা আপনার কোন  জীবন ঘনিষ্ঠ ঘটনার সাথে যুক্ত, যেমন স্নাতক, স্নাতক, আইএসপি তে পরিবর্তন, ইত্যাদি।
  • এটি যদি নতুন মোবাইল ডিভাইস সেটআপের অংশ হিসাবে তৈরি করা হয়ে থাকে তবে ডিভাইসটির বিক্রয়ের প্রাপ্তির তারিখটি চেক করুন।
  • যদি অ্যাকাউন্টটি মোবাইল ডিভাইস পরিষেবা শুরু করার জন্য তৈরি করা হয়ে থাকে, তবে আপনার মোবাইল চুক্তিটির শুরু তারিখটি পরীক্ষা করে দেখুন।
  • পরিচিতদের জিজ্ঞাসা করুন তারা নতুন জিমেইল অ্যাকাউন্ট থেকে বা অন্য কোন ইমেইল যা সেই সময় নতুন ছিল সেখান হতে প্রেরিত একটি ইমেল বার্তা সংরক্ষন করে রেখেছে কিনা।
  • একই সময়ে খোলা যেকোন অন্য অ্যাকাউন্ট তৈরি তারিখ চেক করা, যেমন: পেপ্যাল, ইবে, ফেসবুক, আমাজন ইত্যাদি।
  • যদি আপনার এখনও অ্যাকাউন্টটিতে অ্যাক্সেস থাকে (সম্ভবত কোনও মোবাইল ডিভাইস থেকে সাইন ইন করা থাকে) তাহলে আসল অ্যাকাউন্ট তৈরির ই-মেইল বা আপনি যে এখনও সংরক্ষণ করেছেন তার পুরনো বার্তাগুলির জন্য সমস্ত মেল লেবেল চেক করুন।
কিন্তু লটারি করার মত করে অনেক তারিখ অনুমান করা শুরু করবেন না। কেউ যখন তারিখে অনুমান করছে তখন Google তা বলতে পারে তাই এটি কোনভাবেই কাজে আসবেনা।

"If you can, briefly tell us why you can't access your account"- এখানটাই আপনি আপনার  অ্যাকাউন্টের মালিকানা প্রমাণ করবেন এমন জায়গা এটি নয়। বরং যখন আপনার একাউন্ট হারায় তখন কি হয়েছিল তার বর্ণনা এখানে দিন। এখানে যদি আপনার অ্যাকাউন্টের সাথে কী ঘটেছে তার বর্ণনা দিন তা যদি Google এর তথ্যের সাথে মেলে তবে এটি আপনার একাউন্টের নিজস্বতার প্রমাণ হিসাবে কাজে আসবে নচেৎ নয়।

গুগল যে বিষয়গুলো বিবেচনায় আনেঃ-
গুগল একটি বিষয় পরিস্কার করেছে, একাউন্ট পুনরুদ্ধারে সবচেয়ে যে বিষয়গুলো কাজে আসে তা হলো আপনি যে উপায়ে আপনার একাউন্টে প্রবেশ করতেন ঠিক সেই পথেই আপনাকে একাউন্ট পুনরুদ্ধারে চেষ্টা করা।
যা কিছু গুগল ব্যবহার করে  তারা তা স্পষ্ট না করলেও,  বাস্তব অভিজ্ঞতা নিচের আংশিক বা সবগুলিকে নির্দেশ করে:

  • যে ব্রাউজার আপনি ব্যবহার করতেন (সম্ভবত তাতে সংরক্ষিত কুকিস)।
  • বাহ্যত ব্যবহৃত কম্পিউটার বা মোবাইল ডিভাইস। আপনি যদি কোনও ই-মেইল অ্যাপ্লিকেশন বা ক্লায়েন্ট ব্যবহার করেন তবে রিকোভারির  জন্য একই বাহ্যতঃ ব্যবহার করা  ডিভাইসের একটি ব্রাউজার ব্যবহার করুন।
  • ঠিক যে লোকেশনে আপনি জি-মেইলটি ব্যহার করতেন-যদি আপনি সর্বদা একই নির্দিষ্ট লোকেশন (হোম, কাজ, ইত্যাদি) থেকে অ্যাকাউন্ট অ্যাক্সেস করেন তবে সেই সঠিক লোকেশন থেকে রিকোভারির চেষ্টা করবেন।
  • আইপি ঠিকানা বা IP address- সঠিক লোকেশনের মতো একই আইপি ব্যবহার করুন যদিও IP address  নিয়মিত স্পষ্টভাবে পরিবর্তিত হতে পারে। 
অ্যাকাউন্টটি যদি একাধিক ডিভাইসে নিয়মিত ব্যবহার করা হয়, তবে তাদের প্রতিটি থেকে অ্যাকাউন্ট পুনরুদ্ধার প্রক্রিয়া চেষ্টা করুন

আপনার সমস্যাটি বা অনুরূপ ক্ষেত্র বর্ণনা করুন - Google Account Recovver তে নির্দিষ্ট কতকগুলো স্টেপ পুরণ করার পাশাপাশি মাঝে মাঝে আপনি অ্যাকাউন্টের মালিকানা প্রমাণ করতে অপশনগুলো ছাড়াও আরও  কিছু তথ্য পাবেন। এই স্থানটি  সীমিত দৈর্ঘ্যের একটি মুক্ত-ফর্ম্যাট  যেখানে আপনি বিভিন্ন বিষয় লিপিবদ্ধ করতে পারেন যা গুগল চেক করে দেখতে পারে। কিন্তু বিশেষ কিছু নিয়ম রয়েছে যা আপনার জি-মেইলের মালিকানা প্রমাণে সহায়তা কিংবা অসহায়তাও করতে পারে এটি আসলে নির্ভর করে Google আপনার দেওয়া তথ্যের কতটুকু যাচাই করতে পারে আর কী কী যাচাই করতে পারেনা তার উপর।

  • এই স্থানে যা যা অন্তর্ভুক্ত করবেনঃ-
  • আপনার কি এখনও  অ্যাকাউন্টে অ্যাক্সেস আছে, এবং থাকলে এটি কি ধরনের অ্যাক্সেস (মোবাইল, ব্রাউজার, ইত্যাদি)।
  • কেন আপনি অ্যাকাউন্ট অ্যাক্সেস হারিয়েছেন:

        ⬜ Compromised account বা ছলচাতুরী বা জালিয়াতির শিকার হয়েছেন?
        ⬜ পাসওয়ার্ড হারিয়ে ফেলেছেন?
                 ⬜ Authenticator অথবা ফোন হারিয়ে যাওয়ার কারণে আপনার 2-step verification                                     অকেজো হয়ে গেছে অথবা আপনার নিকট কোন ব্যাকআপ কোড নেই?
                 ⬜ রিকোভারিতে অপরিচিত ডিভাইস দেখাচ্ছে?
                 ⬜ আপনার একাউন্টে অস্বাভাবিক কোন কিছু দেখছেন?
                ⬜ অন্যন্য সিকিউরিটি সংক্রান্ত বিষয় ( যেমন সিক্রেট প্রশ্ন, ফোন সনাক্তকরণ) কাজ                                   করছেনা?             

  • আরও কোন পাসওয়ার্ড কি আপনার মনে আছে?
  • একাউন্ট রিকোভারির সময় কখনো জিজ্ঞেস করা না হলেও আপনার একাউন্ট তৈরীর প্রকৃত তারিখ যদি জানা থাকে। 
  • সর্বশেষ ঠিক কখন আপনি আপনার একাউন্টে সফলভাবে প্রবেশ করে ছিলেন? 
  • একাউন্টটি আপনি কোন কোন ডিভাইস ব্যবহার করে লগইন করতেন?
  • কোন দেশ এবং কোন শহর হতে আপনি এই একাউন্টটিতে লগইন করতেন?




  • এই স্থানে কি কি অন্তর্ভুক্ত করবেন না
  • মালিকানা প্রমাণের জন্য নিজ একাউন্টে প্রবেশের তথ্য দেওয়া। গোপনীয়তার জন্য গুগল কর্মচারীদের ব্যবহারকারীর অ্যাকাউন্টে প্রবেশাধিকার দেওয়া হয়নি। 
  • আপনার জি-মেইল  অ্যাকাউন্টটি অন্যান্য কোন কোন একাউন্ট বা সাইটের সাথে (যেমন ফেসবুক, পেপ্যাল ইত্যাদি) সংযুক্ত সে সকল তথ্য দেওয়া। 
  • এমন কোন কিছু যা ব্যক্তিগত সনাক্তকরণে কাজে লাগে যেমন National ID. আপনি কে তা প্রমান করে নিশ্চয় আপনি প্রমান করতে পারবেন না যে আপনি একাউন্টের মালিক।
মনে রাখবেন, অ্যাকাউন্ট অ্যাক্সেস হিস্টরি এবং সার্ভার লগ উপর ভিত্তি করে Google কেবল আপনাকে যাচাই করতে পারে। অন্যকোনভাবে নয়। 
যে সকল বিষয় আপনার নিয়ন্ত্রনে নেই - Google  এর নিকট তাদের সার্ভারে আপনার একাউন্ট সম্পর্কে অনেক তথ্য রয়েছে যা দিয়ে একাউন্টের মালিকানা প্রমান করতে ব্যবহার করা যায়।  গুগল এই তথ্য কারো নিকট শেয়ার করেনা তবে এসম্পর্কে কিছুটা অনুমান করা যেতে পারে যেমন-

  • সঠিক অবস্থান যেখান থেকে অতীত হতে বর্তমান সময় পযন্ত আপনার একাউন্টে এক্সেস করা হয়েছে।
  • যেসকল ডিভাইস, কম্পিউটার, ব্রাউজার, ক্লায়েন্ট, এবং অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করে একাউন্টটিতে অ্যাক্সেস করাহয়েছে।
  • ওয়েব, IMAP, POP3, মোবাইল ইত্যাদি সহ যে ধরনের জিনিসকে আপনার একাউন্টকে এক্সেস দেওয়া হয়েছে তার তথ্য। 
  • অ্যাকাউন্টে পুনরুদ্ধার দাবির যাবতীয় ইতিহাস যেমন কখন এবং কোথায় থেকে কোন কম্পিউটার, কোন ডিভাইস, কোন স্থান, কোন ব্রাউজার ব্যবহার করে রিকোভারি আবেদন করা হয়েছিল। অন্য কেউ আপনার একই একাউন্ট রিকোভার করার চেষ্টা করেছিল কিনা তাও এ বিষয়টির অন্তর্ভুক্ত। 
  • বর্তমান অ্যাক্সেসের ধরন এবং অ্যাকাউন্টের ব্যবহার (যদি এটি কোনও হ্যাকার দ্বারা লুট এবং ব্যবহার করা হয়)
  • কোন সন্দেহ নেই আরো অনেক কিছু গুগল ব্যবহার করতে পারে যা আপনার নিয়ন্ত্রনের বাইরে।  
মুল বিষয় হল যে Google অ্যাকাউন্টটি সম্পর্কে  অনেক কিছু জানে যা আপনি ধারনা করছেন তার থেকেও বেশি । এবং তারা এগুলাকে কাজে লাগায় যখন  একজন একাউন্ট রিকোভারির জন্য রিকোয়েস্ট করে। 


অ্যাকাউন্ট পুনরুদ্ধারের সাথে যৌক্তিক সমস্যাগুলি - অ্যাকাউন্ট পুনরুদ্ধারের সময় কয়েকটি বিষয় রয়েছে যা মনে রাখতে হবে।   

  • আপনি কতবার একাউন্ট রিকভারি রিকোয়েস্ট করেছেন তা বিবেচ্য বিষয় নয় বরং আপনি প্রতিবার কতটুকু সঠিক আর কত বেশি যৌক্তিক উত্তর দিয়েছেন তাই এখানে বিবেচ্য।  যদি আপনার রিকোভারি রিকোয়েস্টটি  প্রত্যাখ্যান করা হয়, তাহলে আপনাকে আরও উত্তর দেওয়ার জন্য কঠোর পরিশ্রম করতে হবে এবং পরবর্তী রিকোভারি রিকোয়েস্টে  উত্তরগুলিকে আরও সঠিক করতে হবে। যদি আপনার নতুন করে কোন কিছু যোগ করার না থাকে তবে প্রক্রিয়াটির পুনরাবৃত্তি করার দরকার নেই।  

  • প্রতিটি রিকোভারি রিকোয়েস্ট দেওয়ার আগে রিপ্লাই মেইল এর জন্য অপেক্ষা করুন। যদি আপনাকে 1-3 ঘন্টা বলা হয়, তবে আমি বলব পরের দিন পযন্ত অপেক্ষা করুন। যদি আপনাকে 3-5 ব্যবসায়িক দিনের কথা বলা হয় (যা একটি পূর্ণ সপ্তাহের রিয়েল টাইম হয়) তবে অতিরিক্ত  ১ দিন বা দুই দিন অপেক্ষা করুন।

  • যদি আপনি কোনও রিপ্লাই না পান তবে আপনার রিপ্লাই মেইলের জন্য দেওয়া নির্দিষ্ট অ্যাকাউন্টের  স্প্যাম বা জাঙ্ক ফোল্ডারটি  চেক করুন। রিকভারি রিকোয়েস্ট করার সময় আপনি একাধিক অ্যাকাউন্ট সরবরাহ করলে, সবগুলি পরীক্ষা করে দেখুন। 

  • ডুপ্লিকেট রিকোয়েস্ট, অথবা একটি রিপ্লাই মেইলের জন্য অপেক্ষা না করে আবার রিকোভারি রিকোয়েস্ট করলে  সেটি submission lock পযন্ত গড়াতে পারে যার ফলে পুনরায় রিকোয়েস্ট পাঠানোর জন্য আপনাকে আরও কয়েদিন পযন্ত অপেক্ষা করতে বাধ্য করতে পারে। 

  • অনুমিত উত্তর  (যেমন একাউন্ট সৃষ্টির তারিখের ক্ষেত্রে) Google নিকট নিশ্চিত হলে এই বিষয়টি গুগল আর নাও রাখতে পারে এবং  এই প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করা বন্ধ করতে পারে। 






No comments:

Post a Comment

Post Bottom Ad

Pages